তারিখ : ২২ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁর জনজীবন অতিষ্টি ঘন ঘন লোডশেডিংয়ে

নওগাঁর জনজীবন অতিষ্ঠ ঘন ঘন লোডশেডিংয়ে
[ভালুকা ডট কম : ১১ মে]
বিদ্যুতের লোডশেডিংএ অতিষ্ঠ নওগাঁবাসী। ঘন ঘন লোডশেডিংয়ে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। লোডশেডিংয়ে অতিষ্টরা বিভিন্ন জনের কাছে নিজেদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড (নেসকো) বলেছেন কোন লোডশেডিং নাই। হঠাৎ করে বাড়তি চাপের কারণে এ সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে লোডশেডিংয়ে কারণে অফিস-আদালতেও স্বাভাবিক কাজকর্ম ব্যহত হচ্ছে। দিনে কমপক্ষে দিনে ১২-১৫ বার বিদ্যুৎ আসা-যাওয়া করছে। এতে করে দিনে ৫-৬ ঘন্টা বিদ্যুৎ থাকছে না। এভাবে বিদ্যুৎ আসা-যাওয়া করায় কলকারখানায় সুষ্ঠু ভাবে কোনো কাজ হচ্ছে না। প্রচন্ড গরমে মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ছে। বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধরা বেশি সমস্যায় পড়েছে। গত ৬ মে থেকে থেকে শুরু হয়েছে লোডশেডিং। বৈশাখের এই তপ্ত রোদ ও প্রচন্ড গরম। প্রায় ৩৫-৩৮ ডিগ্রী সেলসিয়াম তাপমাত্রা। কাটফাটা রোদে বাদ্য হয়ে রাস্তাঘাটে মানুষেরা চলাচল করছে। একটু প্রশান্তির আশায় ফ্যানের সুইচে হাত দিলেই দেখা যাচ্ছে বিদ্যুৎ নেই। কষ্ট যেন নওগাঁ বাসির সঙ্গী হয়ে গেছে।

শহরের বালুডাঙ্গা নিবাসী রিক্সা চালক ফারুক হোসেন বলেন, সারা-দিন রিক্সা চালায়ে বাড়িতে ফিরে দেখি বিদ্যুৎ থাকে না। এত গরম বিদ্যুতের কারনে রাতে ঠিক ভাবে ঘুমাতে পারি না। শহরের বাঙ্গাবাড়ীয়া এলাকার স্কুল ছাত্রী নওশিন বলেন, সারা দিনে ১০-১২ বার বিদ্যুৎ আসা-যাওয়া করে। ঠিক ভাবে লেখা পড়া করতে পারছি না। যখনি পড়তে বসি বিদ্যু চলে যায়। মাষ্টারপাড়া নিবাসি আইজুল হক বলেন, কি দিন কি রাত সব সময় বিদ্যুৎ থাকে না এই প্রচন্ড গরমে অসুস্থ হয়ে পড়েছি। মনে হয় বিদ্যুৎ অফিসের কিছু অসাধু কর্মকর্তার কারণে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে। এটার সুষ্ঠু সুরহা হওয়া দরকার। পার নওগাঁ নিবাসি সুলতান বলেন, নওগাঁতে বিদ্যুৎতো যায় না মাঝে-মাঝে আসে। গরম পড়ার পর থেকে  দিন রাত সব সময় বিদ্যু থাকে না।

এ বিষয়ে নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড নওগাঁর নির্বাহী প্রকৌশলী মোহম্মদ মুনির হোসেন বলেন, রোজা-রমজানে বিশেষ করে বিকেল ও সেহেরীতে একই সময় রান্না করা হচ্ছে। এতে করে ট্রান্সফর্মারে লোড পড়ছে। ফলে শহরের উকিলপাড়া, ডিগ্রীর মোড় ও কাঁঠাল তলাতে ট্রান্সফর্মার পুড়ে গেছে। গত ৩ দিন থেকে  ট্রান্সফর্মার বেশি পুড়ে যাচ্ছে যার ফলে বিদ্যুতের সমস্যা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান আমার হাতে আর কোন ট্রান্সফর্মার নেই। আমি বিষয়টি উদ্ধোতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। আমাদের চেষ্টার কোন ক্রটি নাই। আমরা সর্বোচ্চ ভাল সেবা দেয়ার যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। এছাড়া বিদ্যুৎ সরবরাহ ও চাহিদার কোন সমস্যা নাই।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৭ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই