তারিখ : ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

সখীপুরে বনের জমি দখল করে একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান

সখীপুরে বনের জমি দখল করে একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান
[ভালুকা ডট কম : ০৭ মে]
টাঙ্গাইলের সখীপুরে প্রকাশ্যে বনের মূল্যবান জমি দখল করে একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হয়েছে। গত ৬ মাসের মধ্যে উপজেলার হতেয়া রেঞ্জের কালিদাস বিটের কীর্ত্তণখোলা চৌরাস্তা বাজারে পরপর কয়েকটি ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হয়েছে। আরো কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠার পায়তারা করছে। বিষয়টি বনবিভাগের উর্দ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হলে বনের জমি দখলমুক্ত না করে উল্টো  তারা নানা তাল বাহানা করছেন। স্থানীয়দের অভিযোগ বিট কর্মকর্তার যোগসাজশেই প্রকাশ্যে একের পর এক বনের জমিতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের হতেয়া রেঞ্জের কালিদাস বিটের আওতাধীন কীর্ত্তণখোলা চৌরাস্তা বাজার ঘেঁষে গজারিয়া কীর্ত্তণখোলা মৌজায়  ৫৪ নং দাগে প্রায় ৫ একর জমিতে এরশাদ সরকারের আমলে প্লট আকারে ওই জমিতে বনের গাছ লাগানো হয়। পরবর্তীতে বনবিভাগকে স্থানীয় বাজার কমিটি ও এলাকাবাসী ওই জমিতে আর গাছ লাগাতে দেননি। সেই থেকে পুরো জমিটিই এলাকাবাসীর ফুটবল খেলার মাঠ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। গত ৬ মাসে কতিপয় স্বার্থান্বেষী স্থানীয় বিটকর্মকর্তার যোগসাজশে বনবিভাগের ওই জমি দখল করে পরপর কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন।

মঙ্গলবার সকালে সরেজমিনে দেখা যায়, কীর্ত্তণখোলা চৌরাস্তা বাজার ঘেষে বনের ওই জমি দখল করে কীর্ত্তণখোলা গ্রামের আয়নাল হক ১টি,  একই গ্রামের ছাদেক আলী ১টি, আইয়ুব আলী ১টি, গজনবী ২টি এবং আবদুল কাদের ১টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক এলাকাবাসী জানান- স্থানীয় বিট কর্মকর্তাকে মোটা অংকের উৎকোচের বিনিময়েই প্রকাশ্যে বনের জমিতে স্বার্থান্বেষী মহল তাদের ব্যক্তিগত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলছেন। এ বিষয়ে বিট কর্মকর্তাকে জানালেও কোন ব্যবস্থা নেননি।

বনের জমি দখল করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠার বিষয়ে জানতে চাইলে কালিদাস বিট কর্মকর্তা মো. ইমরান হাসান বলেন- ওইসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদের ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অনুসন্ধানী প্রতিবেদন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই