তারিখ : ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

রাবির শিক্ষার্থী সারোয়ার বাঁচতে চায়

রাবির শিক্ষার্থী সারোয়ার বাঁচতে চায়
[ভালুকা ডট কম : ১৩ মার্চ]
বাবা নেই, মধ্যবিত্ত সংসারে ছয় ভাই-বোনের মধ্যে দ্বিতীয় সারোয়ার। অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর স্বপ্ন দেখার মাধ্যমে সে ভর্তি হয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে। তিন বছর আগে তার শরীরে কিডনি (সিকেডি) রোগে ধরা পড়ে। সেই অনুযায়ী করাতে হচ্ছে নিয়মিত চিকিৎসা। বাবা না থাকায় সংসারের ব্যয় বহন করার মতো যেখানে সামর্থ্য নেই সেখানে নিয়মিত তার চিকিৎসার ভার পরিবার নিতে পারছে না।

অর্থাভাবে মাঝখানে দুই বছর সে নিয়মিত চিকিৎসা নেওয়া থেকে বিরত থাকে। অল্প অল্প চিকিৎসা নিলেও তা পর্যাপ্ত ছিল না। ফলে  বর্তমানে সারোয়ারের অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। ক্রিয়েটিনিনের মাত্রা ৬.৭ পরিমাণ বেড়ে গিয়ে তার কিডনী কাজ করছে না। এমতাবস্থায় তার সুস্থ হয়ে উঠার জন্য প্রয়োজন ডায়ালাইসিস অথবা কিডনী প্রতিস্থাপন। কিন্তু এর জন্য প্রয়োজন লম্বা প্রক্রিয়া এবং প্রচুর অর্থ যা তার পরিবার বহন করতে পারবে না। চিকিৎসকেরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন সারোয়ারের চিকিৎসায় আপাতত ১২ লক্ষ টাকা লাগবে। এই টাকা বাংলাদেশে চিকিৎসার ক্ষেত্রে লাগবে কিন্তু যদি বিদেশে চিকিৎসা করা হয় তাহলে লাগতে পারে আরও বেশি অর্থ।

যদি ডায়ালাইসিস করানো হয় তাহলে তাকে বেঁচে থাকা পর্যন্ত এই প্রক্রিয়া চালিয়ে যেতে হবে, ফিরতে পারবে না স্বাভাবিক জীবনে। এই জন্য কিডনী প্রতিস্থাপন খুব জরুরী হয়ে গেছে। কেবল কিডনী প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে সে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবে বলে বিশ্বাস করেন চিকিৎসকেরা।

বন্ধুরা যেখানে নিয়মিত ক্লাস করছে সারোয়ার সেখানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বেডে শুয়ে মৃত্যু যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে। সে রামেকের ২১ নাম্বার ওয়ার্ডে ১৭ নাম্বার বেডে চিকিৎসাধীন। এমতাবস্থায় সারোয়ার বাঁচতে চায়। সে আবার ফিরে আসতে চায় মতিহারের সবুজ চত্বরে। উৎফুল্লে বন্ধুদের সাথে মেতে থাকতে চায় ক্লাস-ক্যাম্পাসে।

ছোট বেলা থেকেই শরীরের নানা প্রতিবন্ধকতা পাত্তা না দিয়ে সারোয়ার এগিয়ে চলেছে। সে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষে (শিক্ষাবর্ষ ২০১৫-১৬) পড়াশুনা করছে। তার বাড়ি নওগা জেলার বদলগাছী উপজেলায়। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের শের-ই-বাংলা হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। তার এই স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে দেশের দয়াশীল এবং বিত্তবানদের সাহায্যের আবেদন জানিয়েছে তার পরিবার এবং বন্ধুমহল।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

পাঠক মতামত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই